ঢাকা, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০১৯ | ৯ চৈত্র ১৪২৫

 
 
 
 

গ্লোবাল টিভি অ্যাপস

বিষয় :

ঢাকা

  • অমর প্রাণী জেলিফিশ!
  • বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক মানুষ সিলেটের তৈয়ব আলী!
  • দুনিয়াতে যমের একমাত্র মন্দির কোথায় আছে জানেন?
  • দ্বীপের নাম ‘ফিংগাল’স কেভ’
  • শেষ পর্যন্ত পাওয়া গেছে জুলিয়েটকে!
  • বিপদের সময় প্রেমের সংস্পর্শ সুদিনের খোঁজ দিতে পারে!
  • ডাইনোসরেরা ফিরে আসবে, বলছে বিজ্ঞানীরা!

নেকড়ের মত হয়ে যাচ্ছে যে কিশোর

গ্লোবালটিভিবিডি ১২:৪৯ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৯

১৩ বছরের কিশোর ললিত পটিদরের স্বপ্ন বড় হয়ে পুলিশ অফিসার হওয়ার। তবে ভারতে জন্ম নেওয়া ছেলেটির জীবন আর ১০ জনের মত স্বাভাবিক নয়। কোনো শারীরিক প্রতিবন্ধকতা না থাকলেও তার মুখ ও শরীর জুড়ে রয়েছে অজস্র পশম। সমবয়সীদের অনেকেই তাকে ‘বানর’ বলে ক্ষেপালেও তার এ ভিন্নতার পেছনে রয়েছে হাইপারট্রাইকোসিস নামক এক রোগের ভূমিকা।

এই ধরনের রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিকে অনেকটাই নেকড়ের মত লাগে। গত ৮ ফেব্রুয়ারি, ডেইলি মিররের এক বিশেষ প্রতিবেদনে ললিতের বিষয়টি উঠে আসলে তাকে নিয়ে তোলপাড় শুরু হয় ভারতজুড়ে।

ললিতের মা পার্বতী বাই বলেন, ‘ললিত যখন জন্ম নেয়, সেসময় খুব অবাক হয়েছিলাম। এরপরই হাসপাতালের স্থানীয় শিশুরোগ বিশেষজ্ঞদের দেখাই, তখন জানতে পারি এই রোগের কোনো সমাধান নাই।’

ললিতের স্কুলে প্রধান শিক্ষক বাবুলাল মাকোয়ানা বলেন, ‘অন্য কোনো ছাত্রের তুলনায় পড়াশোনা ও খেলাধুলায় মোটেও পিছিয়ে নেই ললিত।দুইবছর আগে যখন ললিত স্কুলে ভর্তি হয়, তখন অনেকেই তাকে দেখে অস্বাভাবিক আচরণ করলেও ক্রমেই সবাই তাকে স্বাভাবিকভাবেই মেনে নিয়েছে। এমন, পুরো স্কুল ও বন্ধুদের মাঝে অত্যন্ত জনপ্রিয় ললিত।’

তবে শরীরে পশমের পরিমাণ বেড়ে যাওয়া বাদে আর তেমন কোনো সমস্যা নেই ললিতের। দিব্যি খেলছে, স্কুলে যাচ্ছে, সবই করছে। ললিত নিজেই বলে, ‘মাঝে মাঝে মনে হয়, কেনো আমি সবার চেয়ে আলাদা, এমন না হলে কেউ আমাকে বিরক্ত করতো না।’

তবে, এখন বিষয়টায় অনেকটাই স্বাচ্ছন্দ্য বলেও জানায় ললিত। ললিত তার নিজের স্বপ্নের কথা জানিয়ে বলে, ‘আমি চাই, খুব বড় পুলিশ অফিসার হতে। তাহলে মা-বাবা, দাদিকে দেখাশোনা করতে পারবো।’ আর বন্ধুদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতেও ভুলে ললিত। তার ভাষ্যমতে, ‘বন্ধুরা তাকে সবসময় দেখে রাখে বলেই সে বাসার বাইরে স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে পারে।’

https://video.dailymail.co.uk/preview/mol/2019/02/08/8904984912367469200/636x382_MP4_8904984912367469200.mp4

এমএস


oranjee