ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

 
 
 
 

হামলার পরিকল্পনায় উত্তরায় বৈঠক

আনসার আল ইসলামের ৬ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব

গ্লোবালটিভিবিডি ২:৫৫ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৬, ২০১৯

সংগৃহীত ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক : নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের ছয়জন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। গ্রেফতারকৃত জঙ্গিরা হলো- নীলফামারীর শফিকুল ইসলাম ওরফে সাগর ওরফে সালমান মুক্তাদির, পিরোজপুরের ইলিয়াস হাওলাদার ওরফে খাত্তাব, সাতক্ষীরার ইকরামুল ইসলাম ওরফে আমীর হামজা ও আমীর হোসাইন ওরফে তাওহীদি জনতার আর্তনাদ, ভোলার শিপন মীর অরফে আব্দুর রব এবং চাঁদপুরের ওয়ালিউল্লাহ ওরফে আব্দুর রহমান। রাজধানীতে বড় ধরণের হামলার পরিকল্পনা নিয়ে উত্তরায় মিলিত হয়েছিলো এ জঙ্গি সদস্যরা। চূড়ান্ত পরিকল্পনার আগেই উত্তরা থেকে ৪ জন এবং গাজীপুর ও সাতক্ষীরা থেকে দু’জনকে গ্রেফতার করে র‌্যাবের দু’টি টিম।

শনিবার (১৬ নভেম্বর) র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়ে র‌্যাব-৪ এর অধিনায়ক এডিশনাল ডিআইজি মো. মোজাম্মেল হক বলেন, গ্রেফতারকৃতরা ২ থেকে ৫ বছর ধরে এই জঙ্গি সংগঠনের কার্যক্রমের সঙ্গে জড়িত। এই জঙ্গি সংগঠনের সদস্যরা বাংলাদেশে ইসলামি রাষ্ট্র কায়েম করতে চায়। এটা বাস্তবাবায়ন করার পথে যারা তাদের বাঁধা দেয় তাদের বিরুদ্ধে তারা হামলার পরিকল্পনা করে। তবে চূড়ান্ত পরিকল্পনার আগেই তাদের গ্রেফতার করা হয়।’

র‌্যাব-৪ এর অধিনায়ক জানান, মাদ্রাসা শিক্ষক ওয়ালিউল্লাহ ওরফে আব্দুর রহমান ঢাকা বিভাগের সাংগঠনিক দায়িত্বে ছিল। আর সাতক্ষীরার ইকরামুল ইসলাম ওরফে আমীর হামজা খুলনা অঞ্চলের দায়িত্বে ছিল।

আনসার আল ইসলামের সদস্যরা ‘কাট আউট’ পদ্ধতিতে নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ করে থাকে বলে জানান এডিশনাল ডিআইজি মো. মোজাম্মেল হক। তিনি বলেন, ‘তারা প্রটেকটিভ অ্যাপস ব্যবহার করে নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ করে, যেগুলো সাধারণত ইন্টারফেস করা যায় না। তারা ‘কাট আউট’ পদ্ধতিতে চলে।” তবে র‌্যাবের বিশেষ টিম তাদের ওপর দীর্ঘদিন ধরে নজর রাখছিলো এবং গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

এমএইচএন/এমএস


oranjee

আরও খবর :