ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯ | ১ কার্তিক ১৪২৬

 
 
 
 

আবরার হত্যার ঘটনায় ৬ ছাত্রলীগ নেতা আটক

গ্লোবালটিভিবিডি ৫:৫৬ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ০৭, ২০১৯

সংগৃহীত ছবি

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ৬ ছাত্রলীগ নেতাকে আটক করেছে পুলিশ।

বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ ছয় ছাত্রলীগ নেতাকে আটক করেছেন পুলিশ।

সোমবার দুপুরের দিকে তাদের বুয়েট ক্যাম্পাস থেকে তাদের আটক করা হয়েছে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

আটকরা হলেন, বুয়েট বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মুহতাসিম ফুয়াদ, বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেল, ক্রীড়া সম্পাদক অনিক সরকার এবং তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মেফতাহুল জিয়ন। এই চারজনের নাম প্রকাশ করেছে পুলিশ। বাকি দু'জনের নাম এখনও পুলিশের পক্ষ থেকে প্রকাশ হয়নি।

এই চারজনের মধ্যে অনিক সরকার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী এবং মেফতাহুল ইসলাম জিয়ন আর্কিটেকচার অ্যান্ড মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী।

রোববার রাত ২টার দিকে বুয়েটের শের-ই-বাংলা হলের সিঁড়ি ঘর থেকে তড়িৎ কৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই হলের শিক্ষার্থীদের বরাত দিয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে আবরারকে সন্ধ্যা ৭টার দিকে ক্যেকজন ডেকে নিয়ে যায়। পরে, রাত ২টার দিকে হলের দ্বিতীয় তলার সিঁড়িতে তার মরদেহ পাওয়া যায়।

আবারার ফাহাদ বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের লেভেল-২ এর টার্ম ১ এর ছাত্র ছিলেন। তিনি শের-ই -বাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন। আবরারের বাড়ি কুষ্টিয়া শহরে।

আবরার এবং বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মুহতাসিম ফুয়াদ এবং বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেল একই হলে থাকতেন।

এমএস


oranjee