ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯ | ৮ শ্রাবণ ১৪২৬

 
 
 
 

টিকে থাকার লড়াইয়ে ব্যাটিংয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা

গ্লোবালটিভিবিডি ৮:০৭ অপরাহ্ণ, জুন ১৯, ২০১৯

ছবি : ইন্টারনেট

চলতি বিশ্বকাপের ২৫তম ম্যাচে মুখোমুখি দক্ষিণ আফ্রিকা-নিউজিল্যান্ড। টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন কিউই দলপতি কেন উইলিয়ামসন। ২০১১ বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনাল আর ২০১৫ বিশ্বকাপের সেমি ফাইনালে কিউইদের কাছে হেরে আসর থেকে বিদায় নিয়েছিল প্রোটিয়ারা। এবার এই ম্যাচে মুখোমুখি হওয়ার আগে পরিস্থিতি এমন যে টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে হলে জিততেই হবে প্রোটিয়াদের।

ব্যাটিংয়ে ওপেনিংয়ে নামেন প্রোটিয়া ডানহাতি ব্যাটসম্যান হাশিম আমলা। ব্যক্তিগত ২৪ রান করে আট হাজারি রানের ক্লাবের সদস্য হলেন আমলা। ২ হাজার থেকে ৭ হাজার ওয়ানডে রানের মাইলফলকে দ্রুততম তালিকায় প্রতিবারই হালের এক নম্বর ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলির থেকে উপরে হাশিম আমলা। একটা ইনিংস কম খেললে কোহলিকে টপকে দ্রুততম ৮ হাজারি ক্লাবের সদস্যও হতে পারতেন আমলা।

বুধবার (১৯ জুন) বাংলাদেশ সময় দুপুর সাড়ে তিনটায় বার্মিংহামের এজবাস্টনে ম্যাচটি শুরু হওয়ার কথা ছিল। তখন বৃষ্টির কারণে মাঠ ভেজা থাকায় টস করা সম্ভব হয়নি। ম্যাচ দেরিতে শুরু হওয়ায় দুই দলই ৪৯ ওভার করে ব্যাট করার সুযোগ পাবে।

বিশ্বকাপে লিগ পর্বে নিজেদের খেলা সবগুলো ম্যাচ জয় আর একটিতে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেছে কিউইরা। অন্যদিকে নিজেদের পাঁচ ম্যাচে এক জয়, তিন হার এবং এক ম্যাচে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেছে প্রোটিয়ারা।

দুই দলের অবস্থান: আইসিসির প্রকাশিত সবশেষ র‌্যাংকিংয়ে কিউইদের থেকে এক ধাপ পিছিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা। কিউইদের অবস্থান র‍্যাংকিংয়ের তৃতীয় স্থানে। অন্যদিকে প্রোটিয়াদের অবস্থান চার নম্বরে। দু’দলের রেটিং পয়েন্টের ব্যবধান খুব বেশি নয়। ১১৪ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে আইসিসির ওডিআই র‍্যাংকিংয়ে ৩য় কিউইরা, সেখানে দক্ষিণ আফ্রিকার রেটিং পয়েন্ট ১১১।

দ্বাদশ বিশ্বকাপে দারুণ শুরু হয়েছে কিউইদের। প্রথম তিন ম্যাচের প্রত্যেকটি ম্যাচেই জয় আর চতুর্থ ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয় কিউইদের ম্যাচ। প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ১০ উইকেটে হারিয়েছে, এরপরের ম্যাচে বাংলাদেশকে ২ উইকেটে হারিয়েছে আর সর্বশেষ ম্যাচে আফগানদের বিপক্ষে ৭ উইকেটের বড় জয়।

আর মুদ্রার যেন বিপরীত দিকটা দেখছে দক্ষিণ আফ্রিকা। বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত খেলা পাঁচ ম্যাচে জয় মাত্র একটিতে। সেটিও নিজেদের থেকে অপেক্ষাকৃত দুর্বল আফগানিস্তানের বিপক্ষে। ইংল্যান্ড, বাংলাদেশ আর ভারতের কাছে পরাজয়। আর উইন্ডিজের সাথে ম্যাচটি বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হয়েছিল। তবে আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয়ে আবারও আত্মবিশ্বাস ফিরে পেয়েছে প্রোটিয়ারা।

বিশ্বকাপে হেড টু হেড মোট ম্যাচ: ৭টি, নিউজিল্যান্ড জয়ী: ৫টি। দক্ষিণ আফ্রিকা জয়ী: ২টি। মুখোমুখি দুই দল মোট ম্যাচ: ৭০টি, নিউজিল্যান্ড জয়ী: ২৪টি। দক্ষিণ আফ্রিকা জয়ী: ৪১টি। ড্র: ০টি ম্যাচ পরিত্যক্ত: ৫টি।

এমএস

 


oranjee