ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯ | ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

 
 
 
 

দেশে যেভাবে একুশে পদক চালু হয়, ভূষিতরা যা পান

গ্লোবালটিভিবিডি ১২:৫৫ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ০৭, ২০১৯

দেশে একুশে পদক দেয়ার রীতি চালু হয়েছে ১৯৭৬ সাল থেকে। প্রথমবার বঙ্গভবনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামকে একুশে পদক দেয়া হয়। পরে কবি জসীমউদ্দীন ও বেগম সুফিয়া কামাল একুশে পদকে ভূষিত হন। চলতি বছর এই পুরস্কার দেয়া হচ্ছে ২১ বিশিষ্টজনকে।

বুধবার (০৬ ফেব্রুয়ারি) সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে এ বছরের পদকপ্রাপ্তদের তালিকা প্রকাশের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় এ পুরস্কার নিয়ে চলছে নানা আলোচনা। অনেকেরই প্রশ্ন, কেন দেয়া হয় এই পদক এবং এই পদকে ভূষিতরা কী কী পাবেন?

বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ প্রতিবছর এই পদক প্রদান করে বাংলাদেশ সরকার। এ বছর ভাষা আন্দোলন, শিল্পকলা, মুক্তিযুদ্ধ, গবেষণা, শিক্ষা এবং ভাষা ও সাহিত্য ক্যাটাগরিতে ২১ জনকে পুরস্কার দিচ্ছে সরকার।

এই পদকে যারা ভূষিত হচ্ছেন তারা একটি পদক, একটি সম্মাননা সনদ, একটি রেপ্লিকা এবং পুরস্কারের অর্থমূল্য পাবেন। নিতুন কুণ্ডুর নকশা করা একুশে পদক ১৮ ক্যারেটের সোনা দিয়ে তৈরি। এটির ওজন ৩৫ গ্রাম। পুরস্কারের অর্থমূল্য হিসেবে একুশে পদকে ভূষিত প্রত্যেককে ২ লাখ টাকা দেয়া হয়। তবে আগে এই অর্থমূল্য ছিল ২৫ হাজার টাকা।

এমএস


oranjee