ঢাকা, শনিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

 
 
 
 

ঢাকায় প্রথমবারের মতো মালয়েশিয়ান চিত্রকর হাজি তাহিরের চিত্রপ্রদর্শনী শুরু

গ্লোবালটিভিবিডি ২:৫৯ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৫, ২০১৯

ছবি : গ্লোবাল টিভি

আনিসুর রহমান : দুই দেশের সম্পর্ককে এগিয়ে নিতে ও সাংস্কৃতিক যোগাযোগ বাড়াতে ঢাকায় প্রথমবারের মতো শুরু হয়েছে মালয়েশিয়ার প্রখ্যাত চিত্রকর আব্দুল গফুর হাজি তাহিরের একক ক্যালিগ্রাফি চিত্রপ্রদর্শনী।

রোববার, ঢাকায় জাতীয় জাদুঘরে মালয়েশিয়ান হাইকমিশন ও 'ভ্রমণ' ম্যাগাজিন কর্তৃক যৌথভাবে আয়োজিত এ প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহ্বুব আলী।

গ্লোবাল টিভি বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ও খ্যাতিমান গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব নওয়াজীশ আলী খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন ঢাকার মালয়েশিয়ান হাইকমিশনের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত আমির ফরিদ আবু হাসান, বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান রাম চন্দ্র দাস, ঢাকার রাশিয়ান বিজ্ঞান ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের পরিচালক মেক্সিম ডোবরোখোটব ও 'ভ্রমণ' ম্যাগাজিন সম্পাদক আবু সুফিয়ান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাহবুব আলী বলেন, ‘সংস্কৃতি বিনিময় দেশে-দেশে পর্যটনের বিকাশ, উন্নয়ন এবং প্রসারে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। সংস্কৃতির বিনিময় রাষ্ট্রীয় সম্পর্ক উন্নয়নের পাশাপাশি দুই দেশের জনগণের মধ্যে আন্তঃব্যক্তিক সম্পর্ক তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।’

বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো আয়োজিত এ প্রদর্শনীর সফলতা কামনা করে তিনি বলেন, ‘হাজি তাহির শুধু মালয়েশিয়ার একজন বিখ্যাত চিত্রকরই নয়, একইসঙ্গে তিনি সমসাময়িক ইসলামী ক্যালিগ্রাফি জগতের একজন উজ্জ্বল নক্ষত্র।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্রসমূহের সাথে শক্তিশালী ও নিবিড় সম্পর্ক বজায় রাখার ওপর সবসময়ই গুরুত্ব দিয়ে আসছেন। জোরদার সাংস্কৃতিক সম্পর্ক পারস্পরিক মৈত্রীকে আরও ঘনিষ্ঠ ও উন্নত করে একটি শ্রদ্ধাপূর্ণ অবস্থানে পৌঁছে দেয়; যা উভয় দেশের মধ্যকার অংশীদারিত্বকেও বহুগুণে এবং বহুমাত্রায় বৃদ্ধি করে।’

ছবি : গ্লোবাল টিভি

অর্থনৈতিকভাবে মালয়েশিয়া-বাংলাদেশের অনেক পার্থক্য থাকলেও দুই দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষই মুসলিম। আর এই সম্পর্কের গভীরতা আরো বাড়াতে ঢাকায় এ চিত্র প্রদর্শনী হচ্ছে, যেখানে স্থান পেয়েছে পবিত্র কোরআনের নানা আয়াত।

শিল্পী তার নিজস্ব ভঙ্গিমায় নানাভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন পবিত্র কোরআনের বিভিন্ন আয়াত। এ ধরণের আয়োজন ভবিষ্যতে দুই দেশের সম্পর্ককে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন মালয়েশিয়ার ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার আমির ফরিদ আবু হাসান।

দর্শনার্থীরাও এ ধরণের আয়োজনকে স্বাগত জানিয়েছেন। সেইসঙ্গে দেশের বাইরে বাংলাদেশের শিল্পীদের চিত্রকর্ম নিয়ে একই ধরণের আয়োজনের তাগিদ দিয়েছেন।

চার দিনব্যাপী চিত্র প্রদর্শনীটি চলবে আগামী বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) পর্যন্ত। সকাল সাড়ে দশটা থেকে বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত থাকবে এই প্রদর্শনী।

এআর/এমএস


oranjee