ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯ | ১৩ আষাঢ় ১৪২৬

 
 
 
 

সব বাধা পেরিয়ে অসহায়দের নিয়ে কাজ করতে চাই : কণা চৌধুরী

গ্লোবালটিভিবিডি ১:৪২ পূর্বাহ্ণ, জুন ০১, ২০১৯

কণা চৌধুরী

বিনোদন প্রতিবেদক: সংগীতের পরিচিত মুখ গীতিকার ও কবি হিসেবে কণা চৌধুরীকে সবাই চেনেন। আবার অনেকেই চেনেন প্রতিবাদী কন্যা হিসেবে। কোন কিছু লুকিয়ে না, সরাসরি বলেন। মিডিয়াপাড়ায় ও দেশে অশ্লীলতা ও অপ্রাসঙ্গিক কিছু দেখলে তেলে-বেগুনে জ্বলে উঠেন কণা চৌধুরী।

এরপরও কণা চৌধুরীর একটা ভালো মন আছে, ভালো কিছু উদ্যোগ আছে যেটা অনেকেই জানেনা হয়তো। তিনি প্রতি বছর বৃদ্ধাশ্রম, এতিমখানা ও পথশিশুদের সাহায্যে এগিয়ে আসেন। তাদের সঙ্গে ভাগ করেন সুখ দুঃখ। তবে এবার আর লুকিয়ে নয়, সরাসরি সুবিধা বঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়াতে চান তিনি।

সম্প্রতি কণা চৌধুরীকে স্বদেশ মৃত্তিকা ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা হিসেবে নির্বাচিত করেছেন, স্বদেশ মৃত্তিকা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মো. আকবর হোসেন। এ বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে তিনি এ ঘোষণা দেন।

কণা চৌধুরী স্বদেশ মৃত্তিকা ফাউন্ডেশনকে সঙ্গে নিয়ে সত্যিকার অর্থে মানবতার কাজে নিজেকে সপে দিতে চান বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, অসহায়দের সহযোগিতায় অনেকেই এগিয়ে আসেন নিজেদের সাধ্যানুযায়ী। ছোট ছোট পায়ে এগিয়ে চলা আমার অনেক দিনের।

ভালো কাজে নানান কথা হজম করতে হয়। তবে সব বাঁধা অতিক্রম করে এগিয়ে যাওয়ার নাম জীবন। আমার অনেক দিনের ইচ্ছে পথশিশুদের পাশে দাঁড়ানোর, সেই সুযোগটা আমাকে করে দিলো স্বদেশ মৃত্তিকা ফাউন্ডেশনের ভাইস-চেয়ারম্যান পৌষী জামান। আমি অভিভূত! আমার আইডিয়াও কাজে লাগে এটাতেও আমি খুবই খুশি।

পথশিশুদের পাশাপাশি এবার রিক্সাওয়ালা বা রাতে ফুটপাতে যাদের অবস্থান তাদের জন্যও থাকছে ঈদের নতুন লুঙ্গি পাঞ্জাবিসহ নানান ঈদ উপহার।

তিনি বলেন, সবার সহযোগিতা পেয়ে থাকি এই অসহায়দের এক টুকরো হাসি দেখার জন্য। আমাদের দেশে হাজার কোটিপতি আছে অসহায়দের পাশে একটুখানি দাঁড়ানোর। সবাই এগিয়ে আসুন, সবাই অসহায়দের সঙ্গে থাকুন, উপর আল্লাহ দেন, দান-খয়রাতে এতোটুকু কমে না।

স্বদেশ মৃত্তিকা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মো. আকবর হোসেন কণা চৌধুরীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন এবং তার সফলতা কামনা করে সহযোগীতাও চেয়েছেন।

এমএস


oranjee