ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯ | ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

 
 
 
 

নিরাপদ সড়কের জন্য চালক ও পথচারী সবাইকে সচেতন হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

গ্লোবালটিভিবিডি ৩:৫৮ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৬, ২০১৯

ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সড়কে নিরাপদে চলাচলের জন্য চালক ও পথচারী থেকে শুরু করে সবাইকে সচেতন হতে হবে।

বুধবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

উদ্বোধন করা প্রকল্পগুলো হচ্ছে- নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ভুলতায় চারলেনের ফ্লাইওভার, ময়মনসিংহ-গফরগাঁও-টোক সড়কে বানার নদীর ওপর সেতু, মুন্সীগঞ্জের বিভিন্ন সড়কে ১৩টি সেতু, পটিয়া বাইপাস সড়ক ও সাতক্ষীরা শহর বাইপাস সড়ক।

এসব উন্নয়নকাজের মধ্যে ৩৩৮ কোটি ৮২ লাখ টাকা ব্যয়ে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ভুলতায় চারলেনের ফ্লাইওভার প্রকল্পটি নির্মাণ করা হয়। এ প্রকল্পের আওতায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক বরাবর ১২৩৯ মিটার দৈর্ঘের একটি ও ঢাকা বাইপাস মহাসড়ক বরাবর ৬১১ মিটার চারলেনের দুই ফ্লাইওভার নির্মাণ এবং ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক বরাবর ২.১৩ কিলোমিটার এবং ঢাকা বাইপাস সড়ক বরাবর ১.০৮৪ কিলোমিটার সড়ক প্রশস্তকরণ করা হয়।

ময়মনসিংহ-গফরগাঁও-টোক সড়কে বানার নদীর ওপর ২৮২.৫৫৮ মিটার দৈর্ঘ্যের সেতুটি নির্মাণ করতে ব্যয় হয় ৩২ কোটি ৯০ লাখ ৮০ হাজার টাকা।

ভোমরা স্থলবন্দর সংযোগসহ সাতক্ষীরা শহর বাইপাস সড়ক নির্মাণ প্রকল্পটি নির্মাণে ব্যয় হয় ১৮৩ কোটি ৫১ লাখ টাকা। মহাসড়কটিতে ৩টি ব্রিজ, ৫০টি কালভার্টও নির্মাণ করা হয় এ প্রকল্পে।

ঢাকা-চট্টগ্রাম-কক্সবাজার জাতীয় মহাসড়কের ইন্দ্রপুল থেকে চক্রশালা পর্যন্ত বাঁক সরলীকরণ প্রকল্প (পটিয়া বাইপাস সড়ক) বাস্তবায়নে খরচ হয় ৮৭ কোটি ৭০ লাখ টাকা। পরে প্রধানমন্ত্রী এসব এলাকার উপকারভোগীসহ কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে মতবিনিময় করেন।

বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী এসব উন্নয়নকাজ রক্ষণাবেক্ষণে সংশ্লিষ্ট নির্দেশনা দেয়ার পাশাপাশি সাধারণ মানুষকেও সচেতন হওয়ার অনুরোধ জানান। প্রধানমন্ত্রী বলেন, মানুষ মোটেও সচেতন নয়। চালক থেকে শুরু করে সবার সচেতন হওয়া একান্তভাবে প্রয়োজন।

এএইচ/এমএস


oranjee

আরও খবর :